Thursday, October 25, 2018

causes of cancer(কর্কট রোগের কারণ)

  causes of cancer(কর্কট রোগের কারণ)


cancer বা কর্কট রোগ আধুনিক সমাজের সবচেয়ে বড়ো  সমস্যা। বলা যায় আমাদের সমাজ কে ঘিরে ধরেছে এই কর্কট রোগ। যার থেকে মুক্তি  পাওয়া অসম্ভব বলে মনে করছে তাবড় তাবড় বিজ্ঞানীরা। আধুনিক বিজ্ঞান বহুদূর এগোলেও এই মারণ রোগের থেকে মুক্তি পাওয়ার ঔষধ বর্তমানে নেই বললেই চলে। আমরা জানি যে কেমো থেরাপি হলো এই রোগের ঔষধ বা কর্কট রোগে আক্রান্ত কোনো মানুষ চিকিৎসার জন্য যখন হাসপাতালে যায়, তখন তার উপর এই কেমো থেরাপি করা হয়ে থাকে। এই কেমো থেরাপি করবার কারণ কর্কট রোগের কোষ-কে ধ্বংস করে এই থেরাপি। কিন্তু এই
কেমো থেরাপি শুধু কর্কট আক্রান্ত কোষ কেই ধ্বংস করে না, তার সাথে ধ্বংস হয় আমাদের শরীরের সুস্থ কোষগুলিও। সমস্ত ক্ষেত্রেই দেখা যায় মানুষ এর মৃত্যু ঘটে তার শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা না থাকার জন্য এর মূল কারণ হলো কেমো দেওয়ার ফলে ওই সমস্ত ভালো কোষ যারা দেহের মধ্যে থেকে রোগ প্রতিরোধ করত তাদের ধ্বংস হয়ে যাওয়া।
কিন্তু  বিজ্ঞানের এতো অগ্রগতির সত্ত্বেও আজও আমরা অপারেশন এবং কেমো থেরাপির উপর নির্ভর করে থাকি। কিন্তু এই দুই পদ্ধতির ব্যবহার  হয় কর্কট রোগ হওয়ার পর।
তাহলে আমরা কি অপেক্ষা করবো কবে আমরা এই মারণ রোগে আক্রান্ত হব, তারপর এর চিকিৎসা হবে? নাকি আমরা সুস্থ থাকতেই এমন কি করবো বা কি করবনা যার থেকে আমাদের কর্কট রোগ হবার প্রবণতা কমে যায়।
আসুন জানা যাক কিছু বদ্ অভ‍্যেস সম্পর্কে যা আমরা নিয়মিত করে থাকি, যেগুলির জন্য আমাদের কর্কট রোগ হতে পারে।

১. সঠিক আহার না করা :- কর্কট রোগের  মূল কারণ দেহের মধ্যে ইমিউনিটি নষ্ট হয়ে যাওয়া বা  রোগপ্রতিরোধ  ক্ষমতা নষ্ট হয়ে যাওয়া।এই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার বৃদ্ধি হয় ভাল খাবারের থেকে। তাই সঠিক খাবার গ্রহণ করা অত্যন্ত জরুরি। আজ আধুনিক যুগে আমরা ভুলে গেছি সঠিক আহার কোনটা। আমরা শাক,সব্জির,ফল এর পরিবর্তে খাচ্ছি পিজ্জা ,বার্গার ও অন্যান জাঙ্ক ফুড যাতে মাত্রাতিরিক্ত রাসায়নিক মেশানো হয় এবং যা খেলে আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোগ ক্ষমতা হ্রাস পাবেই। তাই জরুরী সঠিক খাবার নির্বাচন করা।

২.অপর্যাপ্ত ঘুম  :-
Early to bed and early to rise
makes and man healthy,wealthy and wise. এর অর্থ আমরা সবাই জানি কিন্তু আমরা  নিজেদের জীবনে এর প্রয়োগ করিনা। ঘুম আমাদের সুস্থ থাকার জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।সঠিক ঘুম আমাদের সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। সুস্হ থাকার জন‍্য আমাদের প্রত‍্যেকেরই প্রয়োজন ৬ থেকে ৭ ঘন্টা ঘুমের। ঘুমের সঠিক সময় রাত ১১ থেকে ভোর ৬টা। সঠিক ভাবে ঘুম না হলে শরীর ভেঙ্গে যায়, শরীরের যথাযথ ক্লান্তি দূর হয় না, ফলে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমতে থাকে যা কর্কট রোগের প্রধান কারণ।

.ব্যায়াম না করা :- ব্যায়াম আমাদের শারীরিক ও মানসিক ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।  ব্যায়াম না করলে দেহের বাজে মেদ বেড়ে যায় যার ফলে আমাদের হৃদপিণ্ডে চাপ বাড়ে, শরীরে অক্সিজেন এর ঘাটতি হয়, যার ফল স্বরূপ আমরা কর্ম ক্ষমতা হারিয়ে ফেলি। আধুনিক জীবনে শরীর কে সুস্থ রাখার মূল অস্ত্র নিয়মিত ব্যায়াম করা। তবে সময়ের অভাব হলে দিনে অন্তত ৩০মিনিট হাটাচলা করতে হবে।



৪.ফল ও সব্জি না খাওয়া :-আধুনিক জীবনের প্রভাবে আমরা প্রাকৃতিক সম্পদ কে দূরে ঠেলে দিচ্ছি। এবং তার বদলে রাসায়নিক দ্রব্যের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়ছি। শরীরে ভিটামিন ও মিনারেলস্ এর ঘাটতি হলে ঔষধ খাচ্ছি, যার প্রভাব খুব অল্প দিনই থাকে। আমাদের প্রাকৃতিক সম্পদ এই ফল ও সবুজ শাক্ সব্জি যা থেকে আমরা ভিটামিন ও মিনারেল পাই যা আমাদের শরীর কে সতেজ ও চনমনে রাখে এবং সবচেয়ে বড়ো কথা আমাদের শরীরে ইম‍্যুউনিটি প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে রোজ  ফল ও সবুজ শাক সব্জি খেলে।


causes of cancer(কর্কট রোগের কারণ)
causes of cancer(কর্কট রোগের কারণ)


৫.ধূমপানি আসক্তি :- ধূমপান কর্কট রোগের অন‍্যতম একটি মূল কারণ। সিগারেট এর মধ্যে একশত এর বেশি রাসায়নিক পদার্থ আছে, যার মধ্যে পর্যায়ে ৭০টি কারণে কর্কট রোগ হয়ে থাকে।  যার মধ্যে রয়েছে
  ..নিকোটিন 
  ..হাইড্রোজেন সায়ানাইড 
  ..ফর্মালডিহাইড 
  ..লিড 
  ..আর্সেনিক 
  ..অ্যামোনিয়া 
  ..বেনজিন  
  ..কার্বন মনোক্সাইড  
  ..নিত্রসমীনে
 ..পলিসিসিলিক এরোমাটিক হাইড্রোকার্বোনস্
এই সবকটি উপাদানই কর্কট রোগের মূল কারণ। এবং প্রত‍্যেকটি উপাদান‌ই আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে দেয় যার ফল স্বরূপ কর্কট রোগ।

causes of cancer(কর্কট রোগের কারণ)
causes of cancer(কর্কট রোগের কারণ)


৬.মদ্যপান :-অনেকেই ভেবে থাকে অল্প মদ্য পান স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক নয়। কিন্তু কথাটি সম্পূর্ণ ভুল। স্বল্প হোক বা মাত্রাতিরিক্ত কোনো অবস্হায়-ই মদ‍্য পান আপনার স্বাস্থ্যের পক্ষে একদম‌ই ভালো নয়। 

৭.গাছপালা কেটেদেওয়া :- গাছ কেটে দেওয়াও আবার কর্কট রোগের কারণ হতে পারে নাকি?অনেকে ভাবছে এটা সত্য নয়, কিন্তু এটা একশো শতাংশ সত্য। আমরা যথেচ্ছ গাছ কেটে যাচ্ছি, এর প্রভাব আমাদের প্রকৃতিতে পড়ছে, যার ফল স্বরূপ পরিবেশ দূষিত হচ্ছে যা আমাদের শরীরে মারাত্মক ভাবে ক্ষতি করছে, শরীরে রোগ প্রতিরোগ ক্ষমতা কমিয়ে দিচ্ছে যার ফল এই মরণ রোগ।

৮.প্রিজারভেটিভ জাতীয় খাদ্য :- আমরা আজ প্যাকেট জাতীয় দ্রব্য সবসময় খেয়ে থাকি। যার মধ্যে থাকছে প্রিজারভেটিভ, যা ওই খাবার কে দ্রুত নষ্ট হতে দেয় না। কিন্তু এই প্রিজারভেটিভ্ আমাদের শরীরে ক্ষতি করছে। 

causes of cancer(কর্কট রোগের কারণ)
causes of cancer(কর্কট রোগের কারণ)



৯.মোবাইলের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার :-মোবাইল আধুনিক যুগের অপরিহার্য অঙ্গ হলেও এর ব্যবহারের সীমা যেন মাত্রাতিরিক্ত না হয়, কারণ মোবাইলের যে তরঙ্গ ব্যবহার করা হচ্ছে তা জীব দেহের পক্ষে ক্ষতিকারক। মোবাইলের জন্য ব্যবহৃত তরঙ্গ আমাদের দেহ কোষ দুর্বল করে দেয়। বিশেষ করে মস্তিষ্কের কোষে ব্যাপক ভাবে প্রভাব বিস্তার করে যার ফল সরূপ মস্তিক ক্যান্সার। 


ব্রিঃ দ্রঃ :-   কর্কট রোগের থেকে দূরে থাকতে হলে বাড়ির খাবার খান ,বাজারের প্যাকেট মশলা বর্জন করুন ,চিপ্‌স ,আইস ক্রিম ও অন্যান মুখরোচক খাবারের(প‍্যাকেট খাবারের) থেকে নিজেরা দূরে থাকুন ও অন্যদের‌ও দূরে রাখুন। প্রকৃতিকে আপন করেনিন, না হলে প্রত্যেক ঘরে ঘরে এই কর্কট রোগ হানা দেবে।


  

No comments:

Post a Comment

মাট্‌ন ও চিকেন-এর চট্‌জলদি রেসিপি

মাট্‌ন ও চিকেন-এর চট্‌জলদি রেসিপি গন্ধরাজ মাংসের ফুলুরি উপকরণ : মাংস (মাট্‌ন) - ৪৫০ গ্রাম (গুঁড়িগুঁড়ি করে কাটা) কাঁচা পেঁপে ...